সপরিবারে করোনাযুদ্ধে জয়ী বরেণ্য সাংবাদিক আবেদ খান

প্রকাশ: ২০২০-০৭-০৫ ২০:৪৫:১০

সপরিবারে করোনাযুদ্ধে জয়ী বরেণ্য সাংবাদিক আবেদ খান

কল উদ্বেগ আর উৎকন্ঠা পাশ কাটিয়ে সপরিবারে করোনাযুদ্ধ জয়ে সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন দেশবরেণ্য সাংবাদিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা- দৈনিক জাগরণের সম্পাদক এবং প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি) এর পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবেদ খান।

রোববার (৫ জুলাই) সাংবাদিক আবেদ খান এবং তার স্ত্রী-সন্তানসহ করোনা আক্রান্ত পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সংক্রমণ মুক্ত হওয়ার ব্যাপারে নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যায়। সপরিবারে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পনের দিনের মাথায় আবেদ খান ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যের নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে।

সস্ত্রীক পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে বিশেষ মুহূর্তে বরেণ্য সাংবাদিক আবেদ খান

এর আগে ১২ জুন আবেদ খানের পরিবারের কয়েকজন সদস্যের শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রাথমিক লক্ষণ দেখা দেয়। পরবর্তীতে ১৯ জুন পিআইবি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবেদ খান সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত হন। এদিন তাদের নমুনা পরীক্ষায় প্রতিবেদনে করোনা পজিটিভ আসে। আক্রান্ত হওয়ার প্রাথমিক দিকে আবেদ খানের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও ২২ জুন কিছুটা জটলতলা দেখা দেয়। জানা যায়, জ্বরের সঙ্গে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যায় ভুগতে শুরু করেন আবেদ খান। এছাড়া করোনা সংক্রমণের প্রভাবে রক্তের তারল্য কমে যাওয়ায়, হৃদযন্ত্রে স্বাভাবিক রক্তসঞ্চালনও ব্যাহত হচ্ছিলো তার। পরে টানা কয়েকদিন পর্যায়ক্রমে তাকে নির্দিষ্ট পরিমাণে অক্সিজেন প্রয়োগ করা হয়। তাছাড়া হৃৎপিণ্ডে রক্তসঞ্চালন স্বাভাবিক রাখতেও নেয়া হয় প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা।

ঐতিহাসিক স্বাধীনতা সংগ্রামের সূচনা লগ্ন থেকেই বিভিন্ন আন্দোলন ও কর্মসূচিতে প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত ছিলেন দেশের শক্তিমান এই কলম সৈনিক। পরবর্তীতে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে, রণাঙ্গণে শত্রুর বিরুদ্ধে সশস্ত্র যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পরেন অকুতোভয় এই বীর মুক্তিযোদ্ধা। পাশাপাশি একজন কলম সৈনিক হিসেবেও বীরত্বের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে গেছেন দেশের এই বর্ষীয়ান মসিয়াল। সাংবাদিক আবেদ খান সুদীর্ঘকাল দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি দৈনিক ভোরের কাগজ, যুগান্তর, সমকাল ও কালের কণ্ঠের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া বেসরকারি টেলিভিশন এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং একুশে টেলিভিশনের নির্বাহী সম্পাদকের দায়িত্বেও ছিলেন আবেদ খান।

বাংলাদেশের গণমাধ্যম সংস্কৃতিতে সুদীর্ঘকাল যাবত অনবদ্য অবদান রেখে আসছেন এই বরেণ্য সাংবাদিক। এছাড়াও সাহিত্য, সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে বিশেষ অবদানের জন্য একাধিক সম্মাননায় ভূষিত হন দৈনিক জাগরণ সম্পাদক আবেদ খান ।

সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে অনন্য সাধারণ অবদানের জন্য টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা আওয়ামী লীগ সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদকালীন ২০১৪ সালে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান কর্তৃক রাষ্ট্রপতি প্রদত্ত স্বর্ণপদক লাভ করেন দেশ বরেণ্য এই শক্তিমান সাংবাদিক।

ট্যাগ :