১৩ জন রোহিঙ্গা করোনায় আক্রান্ত, প্রতিদিন বাড়ছে রোগী ও উদ্বেগ

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২২ ০৮:২৭:৫৭

১৩ জন রোহিঙ্গা করোনায় আক্রান্ত, বাড়ছে উদ্বেগ

কক্সবাজারে বৃহস্পতিবার (২১ মে) আরো ৩ জন রোহিঙ্গা করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের শিবিরে ১৩ জন রোহিঙ্গা করোনা আক্রান্ত হয়ে এখন শিবিরের আইসোলেশন কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোহিঙ্গা শিবিরে ১২টি আইসোলেশন কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে। এসব কেন্দ্রে দুই হাজার সিট থাকবে। ইতিমধ্য ৭৫০ সিটের কেন্দ্রে চিকিৎসা চলছে। সিটের সংখ্যা কম হলে পরবর্তীতে আরো এক হাজার সিটের কেন্দ্র স্থাপনেরও সিদ্ধান্ত রয়েছে।

এদিকে কক্সবাজার জেলায় করোনা আক্রান্তের হারও ক্রমশ উদ্বেগজনক ভাবে বাড়ছে। বৃহস্পতিবার একদিনেই ৩ রোহিঙ্গাসহ ১৭ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত করা হয়েছে। কক্সবাজার সরকারি মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে ১৬২ জনের নমুনা পরীক্ষার পর উক্ত সংখ্যক রোগী শনাক্ত করা হয়। এ নিয়ে এ পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় ২৭৪ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত করা হলো। ইতিমধ্যে শনাক্ত হওয়া ২ জন রোগী মারা গেছেন এবং সুস্থ হয়ে ৫২ জন ঘরে ফিরেছেন।

কক্সবাজারের চকরিয়া এবং কক্সবাজার সদর উপজেলা দুটিতেই সবচেয়ে বেশী করোনা আক্রান্ত রোগী রয়েছে। এ দুটি উপজেলায় ৮৫ জন করে রয়েছেন করোনায় আক্রান্ত। এরপর উখিয়ায় উপজেলায় রয়েছেন ৩৩ জন, পেকুয়া উপজেলায় ২৭ জন, মহেশখালীতে ১৩ জন, টেকনাফে ৯ জন, রামু উপজেলায় ৫ জন, কুতুবদিয়ায় ২ জন এবং রোহিঙ্গা রয়েছেন ১৩ জন।

এদিকে কক্সবাজারের উখিয়ায় বৃহস্পতিবার করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসাসেবা দিতে ১৫০ শয্যার একটি ডেডিকেটেড আইসোলেশন হাসপাতালের উদ্ভোধন করা হয়েছে। কক্সবাজাররের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন এই ডেডিকেটেড আইসোলেশন হাসপাতালের উদ্বোধন করেন। সীমান্ত উপজেলা উখিয়া ও টেকনাফের স্থানীয় বাসিন্দা এবং রোহিঙ্গাদের কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে এখানে চিকিৎসাসেবা নিতে পারবেন।

ট্যাগ :